গ্রামীণ দর্পণ ডেস্ক: কর্ণফুলি নদীর নিয়মিত ড্রেজিংয়ের লক্ষ্যে চট্টগ্রাম বন্দরের জন্য দু’টি কাটার সাকশন ড্রেজার সংগ্রহ করা হবে। এলক্ষ্যে নৌপরিববহন মন্ত্রণালয় কর্তৃক ডিপিপি অনুমোদিত হয়েছে। কর্ণফুলি নদীর সদরঘাট হতে বাকলিয়া চর পর্যন্ত ড্রেজিংয়ের মাধ্যমে নাব্যতা বৃদ্ধি প্রকল্পের কাজ দ্রুত শুরু করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
আজ ঢাকায় নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে চট্টগ্রাম বন্দরের উন্নয়ন, আর্থিক ও প্রশাসনিক বৈঠকে এসব তথ্য জানানো হয়। নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন। বৈঠকে চট্টগ্রাম বন্দরের এক নম্বর জেটির উজানে সার্ভিস জেটি স্থানান্তর করে পুনর্নির্মাণ, পতেঙ্গা কন্টেইনার টার্মিনাল নির্মাণ কাজ দ্রুত করার ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়েছে। বৈঠকে জানানো হয়, চট্টগ্রাম বন্দরের নিউমুরিং কন্টেইনার টার্মিনালের (এনসিটি) জন্য ৫১টি যন্ত্রপাতির মধ্যে ১৯টি সংগ্রহ করা হয়েছে। ২২টি যন্ত্রপাতি সংগ্রহের জন্য এল সি খোলা হয়েছে। শীঘ্রই এগুলো এনসিটি টার্মিনালে সংযুক্ত হবে। বাকি ১০টি যন্ত্রপাতি সংগ্রহের কার্যক্রম চলমান রয়েছে। বৈঠকে অন্যান্যের মধ্যে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আবদুস সামাদ, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান কমডোর জুলফিকার আজিজ উপস্থিত ছিলেন। সূত্র: পিআইডি

419 total views, 3 views today