ক্রাইস্টচার্চে নিহত ৫০ জনের মরদেহ হস্তান্তর শুরু

0
41

গ্রামীণ দর্প ণ ডেস্ক: ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে শুক্রবার জুমার নামাজ আদায়কালে হামলায় নিহত ৫০ জনের মরদেহ হস্তান্তরের কাজ শুরু করেছে নিউজিল্যান্ড কর্তৃপক্ষ।

দেশটির প্রধানমন্ত্রী জাসিন্দা আরডার্ন জানান, স্থানীয় সময় রবিবার সন্ধ্যা থেকে নিহতদের মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা শুরু করবে কিউই কর্তৃপক্ষ। প্রথমে কয়েকজনের মরদেহ দেয়া হবে। বুধবারের মধ্যে সকলের মরদেহ হস্তান্তরের কাজ শেষ করার আশা করা হচ্ছে।

নিউজিল্যান্ড পুলিশ জানিয়েছে, তারা মসজিদে বন্দুক হামলায় নিহত আরও একজনের মৃতদেহ খুঁজে পেয়েছেন। এ নিয়ে নিহতদের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫০ জনে।

ইসলামী আইন অনুযায়ী, মৃত্যুর পর যত তাড়াতাড়ি সম্ভব মৃতদেহ গোসল করিয়ে  কবর দিতে হয়, অন্তত ২৪ ঘণ্টার মধ্যে।
এদিকে নিহতদের পরিবার ও আত্মীয়-স্বজনরা মরদেহ কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে নেয়ার জন্য অধীর অপেক্ষা করছেন।

নিউজিল্যান্ডের পুলিশ কমিশনার মাইক বুশ বলেন, যত তাড়াতাড়ি সম্ভব নিহতদের মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তরের জন্য কাজ করছেন তারা। তবে এর আগে নিহতদের মৃত্যুর কারণ ও পরিচয় সম্পর্কে নিশ্চিত হতে হবে কর্তৃপক্ষকে।

তিনি জানান, গুলিবিদ্ধ ৩৬ জন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। তাদের মধ্যে দুজনের অবস্থা গুরুতর।

নিউজিল্যান্ডের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর ক্রাইস্টচার্চে শুক্রবার দুটি মসজিদে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার পরদিন শনিবার নিউজিল্যান্ডের অস্ত্র আইনে পরিবর্তন আনার জন্য প্রতিশ্রতির কথা পুনর্ব্যক্ত করেন কিউই প্রধানমন্ত্রী জাসিন্দা আরডার্ন।

তিনি বলেন, আগামী সোমবার মন্ত্রীসভার বৈঠকে অস্ত্র নীতি নিয়ে আলোচনা করা হবে।

নারকীয় হত্যাকাণ্ডের পর আটক প্রধান সন্দেহভাজন ২৮ বছর বয়সী ব্রেন্টন ট্যারেন্টকে শনিবার ক্রাইস্টচার্চ জেলা আদালতে হাজির করা হয়। তাকে হত্যার অভিযোগে অভিযুক্ত করা হয়েছে। বাকি দুজন এখনো পুলিশি হেফাজতে রয়েছেন।

গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়, হত্যাকাণ্ডে অভিযুক্ত ব্রেন্টন ট্যারেন্ট অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক। তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মসজিদে ভয়াবহ হত্যাকাণ্ড সরাসরি সম্প্রচার করেছেন।

উল্লেখ্য, শুক্রবার জুমার নামাজের সময় ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলায় অন্তত ৫০ জন নিহত ও ৪৮ জন আহত হন।

সূত্র:(এপি/ইউএনবি)-

123 total views, 3 views today

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here