মাধবদী প্রতিনিধি: নরসিংদীর মাধবদীতে তাঁতবস্ত্র শিল্পপণ্য ও বিনোদন মেলা’র অনুমতি দেয়নি স্থানীয় প্রশাসন। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে মাধবদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু তাহের দেওয়ান এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন স্থানীয় প্রশাসনের কোন অনুমতি না থাকায় এ মেলা বন্ধ করা হয়েছে। মেলা কর্তৃপক্ষ স্থানীয় প্রশাসনের অনুমতি নিতে পারলে মেলা চলতে দেয়ায় কোন বাঁধা থাকবে না।
জানা যায়, প্রায় তিন মাস আগে থেকে মাধবদী এস.পি (সতী প্রসন্ন) ইনস্টিটিউশন এর মাঠে ব্যাপক প্রস্তুতী শুরু করে মেলা বাস্তবায়ন কর্তৃপক্ষ। স্কুল কর্তৃপক্ষ এক মাসের জন্য মেলা উদযাপনের অনুমতি দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে। যার মেয়াদ ছিলো ৩১ মার্চ। মেলার ব্যবস্থাপক বশীরুর রহমান চৌধুরী জন্টু এ বিষয়ে জানাতে অপরাগতা প্রকাশ করেন।
তবে স্থানীয়রা জানান, মাধবদীর ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পশ্চিম পাশের খেলার মাঠটিতে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়। এতে এক শ্রেণীর ঠিকাদার কর্তৃক এ মেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এতে কেউ প্রতিবাদ করতে গেলেই লাঞ্ছিত হতে হয়। এ খেলার মাঠে প্রতিদিনই বিভিন্ন শ্রেনী-পেশার মানুষ শরীর চর্চা ও শিশুরা খেলাধুলা করে। মেলার নামে তিন মাস মাঠটি দখলে থাকায় তারা ক্ষোভ প্রকাশ করেন।
স্থানীয় ব্যবসায়ীরা জানান, মাধবদীতে তাঁতবস্ত্র শিল্পপণ্য ও বিনোদন মেলার নাম করে হাতিয়ে নিচ্ছে লক্ষ লক্ষ টাকা। এছাড়া মেলার নামের সাথে বেচা-কেনার কোন মিল নেই। এতে দেখা গেছে নি¤œ মানের পোষাক চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে ও অন্যান্য পণ্যও দ্বিগুণ মূল্য। বিভিন্ন জেলা থেকে আগত মেলায় দর্শনার্থীরা চাহিদা মেটাতে নি¤œ মানের পোষাকসহ বিভিন্ন পণ্য কিনে নিয়ে বিপাকে পড়ছে। এতে মাধবদীর কাপড়ের সুনাম নষ্ট হচ্ছে বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা।
মেলার পরিচালক কাজী শাহ আলম কনক জানান, মাধবদী পৌরসভা আওয়ামীলীগ আয়োজিত এ মেলার সার্বিক সহযোগিতায় রয়েছে, মনিপুরি তাঁত শিল্প ও জামদানি বেনারসি কল্যাণ ফাউন্ডেশন। মেলা বন্ধ রয়েছে কেন জানতে চাইলে পরে কথা বলবে ও জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে আছেন তিনি এ বলে ফোন কেটে দেন।
নরসিংদী জেলা প্রশাসক সূত্র জানায়, মাধবদীতে তাঁতবস্ত্র শিল্পপণ্য ও বিনোদন মেলার জেলা প্রশাসকের কোন অনুমতি না থাকায় তা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

363 total views, 3 views today