দুই বছরেও চালু হয়নি চার লেনের কাজ মরণ ফাঁদে পরিণত পাঁচদোনা-ডাঙ্গা-ঘোড়াশাল সড়ক

0
63

পলাশ প্রতিনিধি: দীর্ঘ বছর ধরে সংস্কারের অভাবে মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে নরসিংদীর পাঁচদোনা-ডাঙ্গা-ঘোড়াশাল সড়ক। সড়ক জুড়ে বড় বড় গর্ত ও খানাখন্দ সৃষ্টি হয়ে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে সড়কটি। ঝুঁঁকি নিয়ে যানবাহন চলাচল করায় প্রতিনিয়তই ঘটছে দুর্ঘটনা।
সড়ক কর্তৃপক্ষ বলছে, সড়কটি চারলেনে উন্নীতকরণ প্রকল্প একনেকে অনুমোদন হলেও জমি অধিগ্রহণ জটিলতায় সড়ক নির্মাণ শুরুতে বিলম্ব হচ্ছে। সড়ক নির্মাণ কাজ শুরুতে বিলম্ব হলে সাময়িকভাবে দ্রুত সড়ক সংস্কারের দাবী এলাকাবাসীর।
সড়ক ও জনপথ বিভাগের তথ্যমতে, নরসিংদীর পাঁচদোনা-ডাঙ্গা-ইসলামপুর খেয়াঘাট-ঘোড়াশাল সড়কটির দৈর্ঘ্য ২১ কিলোমিটার। সরকার ঘোষিত বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল ও ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে সংযুক্ত থাকায় সড়ক বিভাগের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক এটি।
প্রতিদিন এলাকাবাসীর যাতায়াতসহ বিভিন্ন শিল্প প্রতিষ্ঠানের হাজারো মালবাহি গাড়ী চলাচল করে এই সড়কে। দীর্ঘদিন ধরে সংস্কার না হওয়ায় সড়ক জুড়ে সৃষ্টি হয়েছে বড় বড় গর্ত ও খানাখন্দ। ঝুঁঁকি নিয়ে যানবাহন চলাচল করতে গিয়ে প্রতিনিয়ত ঘটছে দূর্ঘটনা। এতে দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে এলাকাবাসী, যাত্রী ও চালকদের।
স্থানীয়রা জানান, পলাশ উপজেলার ডাঙ্গা এলাকায় গড়ে তোলা বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলকে কেন্দ্র করে সড়কটি চার লেনে উন্নীতকরণ প্রকল্প প্রায় বছর দুই আগে একনেকে অনুমোদন হলেও শুরু হয়নি সড়কের নির্মাণ কাজ। নতুন সড়ক নির্মাণের আশায় এখন আর সংস্কারও হচ্ছে না সড়কটি। এতে কোথাও কোথাও দেবে গিয়ে পাশের খাদে ভেঙ্গে পড়েছে সড়কের অংশ।
ফলে দুর্ভোগের চূড়ান্ত সীমায় পৌঁছেছে সড়কটি। জরুরি পণ্য পরিবহনসহ অসুস্থ হলে রোগীদের হাসপাতালে নেয়াও সম্ভব হচ্ছে না এ সড়কে। দীর্ঘদিনের জনদূর্ভোগ লাগবে দ্রুত গুরুত্বপূর্ণ এই সড়কটির নির্মাণকাজ শুরু করার দাবী জানিয়েছেন এলাকাবাসী।
ডাঙ্গা বাজারের মুদি দোকানী আলমগীর হোসেন জানান, প্রায় একযুগ ধরে রাস্তাটির কোন কাজ হচ্ছে না। দিন যাচ্ছে এটি আরো খারাপ অবস্থার সৃষ্টি হচ্ছে। শুনেছি রাস্তাটি নাকি চার লেন হচ্ছে কিন্তু দুই বছর ধরে কাজের কোন লেবাসও দেখছি না। একটু বৃষ্টি হলে রাস্তার বড় বড় গর্তে পানি ভরে পুকুরে পরিণত হয়। যার কারণে প্রায় সময় এসব গর্তে পড়ে দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে চলাচলকারী যানবহান ও পথচারীরা।
পাঁচদোনা-ডাঙ্গা সড়কের নিয়মিত যাতায়াতকারী সিএনজি চালক গোলজার আলী জানান, সড়ক ভাল থাকলে পাচঁদোনা থেকে ডাঙ্গা যেতে ২০ মিনিট সময়ও লাগে না অথচ এখন দুই থেকে তিন ঘন্টা লেগে যায়। যার কারণে যাত্রীদের কাছ থেকে ভাড়াও বেশি নিতে হচ্ছে। দ্রুত রাস্তাটির সংস্কার না হলে সামনে ঝড়বৃষ্টির দিন এখান দিয়ে গাড়ি চলাচল একেবারেই অসম্ভব হয়ে পড়বে।
ডাঙ্গা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাবের-উল হাই জানান, সড়কটি চার লেনে প্রকল্পের কাজ শুরু না হওয়ায় আপাতত কিছুটা চলাচলের উপযোগী করতে রাস্তার বড়বড় গর্তগুলো ভরাট করার জন্য ইউনিয়ন পরিষদ থেকে ব্যবস্থা নেওয়া হলেও বেশির ভাগ স্থান ভাঙা ও গর্ত থাকায় বৃষ্টির পানিতে তা আবার ভেঙে যাচ্ছে। সড়কটি দ্রুত চার লেনের কাজ না হলে চলাচলে একদম অনুপযোগী হয়ে পড়বে।
এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে সড়ক ও জনপথ নরসিংদী বিভাগের ঈক্ষ থেকে জানানো হয়, চলাচলের উপযোগী রাখতে নিয়মিত সড়ক সংস্কার করা হয়ে থাকে।
এ সড়কটি যেহেতু চারলেন হচ্ছে সেক্ষেত্রে এই মুহুর্তে খুব বেশি ব্যয় করে সড়ক সংস্কার সম্ভব হচ্ছে না। স্থায়ীভাবে সমস্যা সমাধানে আরও সময় প্রয়োজন। জমি অধিগ্রহণ প্রক্রিয়া শেষ হলেই চারলেন সড়ক নির্মাণের কাজ শুরু হবে।

207 total views, 9 views today

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here