এম. এ. সালাম রানা: নরসিংদীতে প্রেসকাব মিলনায়তনে প্রাক ও এলিমেন্টারী শিা বিষয়ক উপজেলা টাস্কফোর্স কমিটির অনুষ্ঠিত এক সভায় নার্সারী, কিন্ডার-গার্টেন, প্রিপারেট্রী ও বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়’র শিক্ষার মান উন্নয়ন, সুষ্ঠু তদারকি নিশ্চিতকরণ সহ প্রতিষ্ঠান সমূহের নিবন্ধন প্রক্রিয়া সহজিকরণে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠিত সভায় সদর উপজেলার ২১৯টি শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষকবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।
সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ড. মোহাম্মদ সেলিম রেজা’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তৃতা রাখেন, উপজেলা সহকারি শিক্ষা অফিসার মিসেস সানজিদা আক্তার, সদর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) সালাহ উদ্দিন মিয়া, ফেমাস ইনস্টিটিউট’র প্রতিষ্ঠাতা এম. হানিফা, জেলা কেজি স্কুল সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ডা. শফিকুল ইসলাম সরকার, থানা কেজি স্কুল সমিতির সভাপতি ডা. রমজান আলী প্রামানিক, প্রাইম জুনিয়র হাইস্কুলের প্রতিষ্ঠাতা মো. বাহারুল হক সরকার, সানফাওয়ার কিন্ডারগার্টেন’র অধ্য মো. শেখ সাদী, মাধবদী মডেল স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. আলী পাঠান, আলগী-মনোহরপুর কিন্ডারগার্টেন’র প্রতিষ্ঠাতা মো. এমদাদুল ইসলাম খোকন, মাস্টার বিদ্যানিকেতন’র প্রিন্সিপাল মো. মোমেন সরকার প্রমুখ।
অনুষ্ঠান পরিচালনা ও সঞ্চালনায় ছিলেন সহকারী শিক্ষা অফিসার মিসেস দিলরুবা ইয়াছমিন। গত ৫ এপ্রিল বুধবার অনুষ্ঠিত মত-বিনিময় সভায় প্রাক ও এলিমেন্টারী শিক্ষা দেশের শিক্ষা ব্যবস্থার মূল ভিত্তি উদ্বৃতি দিয়ে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ড. মোহাম্মদ সেলিম রেজা বলেন, নার্সারী, কিন্ডার-গার্টেন, প্রিপারেট্রী ও বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়সমূহের মাধ্যমে দেশে বুনিয়াদী শিক্ষার রচনা করা হয়। তথাপি স্বাধীনতার ৪৫ বছরেও এ সকল শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানসমূহের সুনির্দিষ্ট কোন নীতিমালা প্রণীত হয়নি। ফলে শত শত নার্সারী, কিন্ডার-গার্টেন, প্রিপারেট্রী স্কুলগুলো সরকারী তদারকি বহির্ভূতভাবে পরিচালিত হচ্ছে। দেশের সর্বত্র তৃণমূল পর্যায়ে গড়ে ওঠা এ সকল শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানগুলোকে সরকারী নীতিমালার আওতায় এনে শিক্ষার মাণ-উন্নয়ন বৃদ্ধি করার আহবান জানান। অপরদিকে সরকারীভাবে উপজেলা পর্যায়ে টাস্কফোর্স কমিটি গঠন করা হয়েছে।
সরকারীভাবে প্রণীত টাস্কফোর্স কমিটির নীতিমালা অনুযায়ী বিগত সময়ে সরকারী তদারকি বহির্ভূতভাবে পরিচালিত শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানগুলোকে রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি প্রদানের উদ্দ্যোগ নেয়া হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রতিষ্ঠান প্রধানদের সার্বিক সহযোগিতা করার আহবান জানান।

352 total views, 3 views today