পলাশ থেকে মোবারক হোসেন: পলাশ উপজেলার ডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদের স্বতন্ত্র প্রার্থী ইকবাল হোসেনের এক কর্মীকে কুপিয়ে আহত করা হয়েছে। আহত হানিফ মাহমুদ জানান, বুধবার বিকাল ৫ টার সময় ডাঙ্গা ইউনিয়নের হাসনাটা এলাকার ফকির বাড়িতে চশমা মার্কার নির্বাচনি স্টিকার লাগাতে গেলে যুবলীগ ও ছাত্রলীগের ১০ থেকে ১৫ জন কর্মী দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আমার উপর হামলা চালায়। এ সময় তারা সামুরাই দিয়ে আমার বা হাতে ও মাথায় আঘাত করে। আমরা চিৎকারে এলাকাবাসী ছুটে আসলে তারা পালিয়ে যায়।
স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী ইকবাল হোসেন জানান, ঘটনাস্থল থেকে তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করি। যেভাবে একের পর এক আমার কর্মীর উপর হামলা ও নির্বাচনি প্রচারে বাধা প্রদান ও ভাঙচুর চালানো হচ্ছে এতে সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে আমার সংশয় দেখা দিচ্ছে। এভাবে চলতে থাকলে নির্বাচন পর্যন্ত মাঠে থাকাটাই মুশকিল হয়ে দাঁড়াবে।
পলাশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ জানান, প্রার্থীর পক্ষ থেকে থানায় একটি অভিযোগ দেয়া হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িত ব্যাক্তিদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

559 total views, 3 views today