শিবপুরে আচরণবিধি লঙ্ঘন করে নৌকা প্রতীকের জনসভা

0
45

স্টাফ রিপোর্টার: নরসিংদীর শিবপুরে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী হারুনুর রশীদ খাঁনের সমর্থনে নির্বাচনী জনসভা হয়েছে। সোমবার বিকেলে শিবপুরের ইটাখোলায় উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে এই জনসমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশের মঞ্চটি করা হয়েছে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক ও নরসিংদী-কিশোরগঞ্জ আঞ্চলিক সড়কের সংযোগস্থলে। এতে ভোগান্তিতে পড়েন সাধারণ যাত্রীরা। নির্বাচনী বিধিমালা লঙ্ঘন করায় আইনগত ব্যবস্থা নিতে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ে এই বিষয়ে অভিযোগ দিয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী আরিফ উল ইসলাম মৃধা।
উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি মো. আজিজুর রহমান খানের সভাপতিত্বে জনসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন নরসিংদী-২ পলাশ আসনের সাবেক সাংসদ কামরুল আশরাফ খান পোটন। বিশেষ অতিথি ছিলেন নরসিংদী-৩ শিবপুর আসনের সাবেক সাংসদ সিরাজুল ইসলাম মোল্লা। প্রধান বক্তা ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সামসুল আলম ভূঁইয়া রাখিল।
স্বতন্ত্র প্রার্থী দোয়াত কলম মার্কার আরিফ উল ইসলাম মৃধা জানান, নির্বাচনী বিধিমালার ৭(ক) ধারায় স্পষ্ট করে বলা আছে, পথসভা ও ঘরোয়া সভা ব্যতীত কোন জনসভা করা যাবে না। ৭(খ) ধারায় বলা আছে, জনগণের চলাচলে বিঘœ ঘটতে পারে এমন সড়কে মঞ্চ তৈরি করে সভা করা যাবে না। অথচ নৌকা প্রতীকের প্রার্থী এসব তোয়াক্কা না করে জনগনের ভোগান্তি সৃষ্টি করে জনসভা করেছেন। জেলা নির্বাচন অফিসে অভিযোগ দিয়েও প্রতিকার পাওয়া যায় নি।
শিবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম আজাদ বলেন, মহাসড়কে রেগুলার ডিউটিতে থাকা পুলিশেরাই শুধু দায়িত্ব পালন করেছেন। এ বিষয়ে আর কোন মন্তব্য তিনি করতে রাজী হন নি।
জানতে চাইলে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হারুনুর রশীদ খান মুঠোফোনে বলেন, নির্বাচনী আচরণবিধি কোনভাবেই লঙ্ঘন করা হয় নি। আমরা মতবিনিময় সভার আয়োজন করেছিলাম কিন্তু দিন শেষে এটি জনসভায় পরিণত হয়েছিল। সড়কে মঞ্চ তৈরির বিষয়ে জানতে চাইলে কোন মন্তব্য করতে রাজী হন নি তিনি।
জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মেজবাহ উদ্দিন জানান, এই বিষয়ে একটি অভিযোগ আমরা পেয়েছি এবং বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হয়েছে। নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মহাসড়কে মঞ্চ বানিয়ে জনসভা করে সুস্পষ্টভাবে আচরণবিধি লঙ্ঘন করেছেন। এর বিরুদ্ধে নির্বাচনী বিধিমালা অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

135 total views, 3 views today

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here