নরসিংদী জেলায় নগরায়নের প্রভাব এবং ইউনিয়ন পরিষদের ভূমিকা ও সক্ষমতা

0
30

॥ মো. শাহাবউদ্দিন পাঠান ॥

নরসিংদী জেলা শিল্প সমৃদ্ধ একটি জেলা এবং বিশাল এলাকায় সবজি আবাদের ফলে এখানকার মানুষের অর্থনৈতিক অবস্থা ভালো। তাছাড়া বাংলাদেশের অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি বৃদ্ধি পাওয়ায়ও মানুষের অর্থনৈতিক সক্ষমতা স্বাভাবিকভাবেই বৃদ্ধি পেয়েছে এবং তা উত্তর উত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে। জেলার বিভিন্ন এলাকায় একটু খেয়াল করলে দেখা যাবে যে, মানুষ গ্রাম অঞ্চলেও বর্তমানে বহুতল বিশিষ্ট দালান নির্মাণ করছে। গ্রামের মানুষ শহর বা তার আশেপাশে জমি ক্রয় করে আবাসন নির্মাণ করছে। পাকা দালান নির্মাণের সময় তারা রাস্তা ঘেষে অর্থাৎ কোনো দূরত্ব বজায় না রেখে নির্মাণ কাজ করছে। শহরতলীর এসব এলাকা নিকট ভবিষ্যতে পৌর এলাকাভুক্ত হবে অথবা জেলা/উপজেলা সদরের এলাকা হিসেবে বিশাল আবাসিক এলাকায় রূপান্তরিত হবে। ইউনিয়ন পরিষদ বা অন্য কোনো প্রতিষ্ঠানের নজরদারী ও কোনো উন্নয়ন পরিকল্পনা না থাকায় ভবিষ্যতে রাস্তা, ড্রেন ও সূর্য্যরে ব্যবস্থা মারাত্মকভাবে বিঘিœত হতে বাধ্য। এর ফলে ঐ সব এলাকার বাসিন্দারা নাগরিক সুবিধা বঞ্চিত একটি নগর-শহর গড়ে তুলছে যা অনাকাক্সিক্ষত।
উদাহরণ স্বরূপ চিনিশপুর ইউনিয়ন এর বিভিন্ন এলাকা চিনিশপুর, পশ্চিম ভেলানগর, ঘোড়াদিয়া পুরানপাড়া, গাবতলী ও বীরপুর এলাকার কথা উল্লেখ করা যায়। এ সকল এলাকায় যেভাবে দালান নির্মাণ করা হচ্ছে তাতে কি ধরণের একটি শহর গড়ে উঠছে তা সরেজমিনে পরিদর্শন করা হলে ভবিষ্যতের ভয়াবহতার বিষয়টি ভেসে উঠবে। বিশেষ করে চিনিশপুর এলাকায় রাস্তার উভয় পাশে পাকা দালান নির্মাণের ফলে রাস্তার পানি নিষ্কাশনের কোন সুযোগ না থাকায় মানুষ চলাচলে অবর্ণনীয় কষ্ট ভোগ করতে হচ্ছে। বারবার রাস্তা ঠিক করা হলেও তা ভেঙ্গে যাচ্ছে। বিশাল এলাকার পানি নিষ্কাশনের কোন ব্যবস্থা না থাকায় এবং কোন ড্রেন না থাকায় তিতাস গ্যাস অফিসের আশেপাশের এলাকার অবস্থা ভয়াবহ। অন্যান্য এলাকাও কমবেশি একই অবস্থা বিদ্যমান। সহজেই অনুমান করা যায় যে, অন্যান্য উপজেলা সদরের লাগোয়া ইউনিয়নে একই অবস্থা তৈরি হচ্ছে।
এ ধরণের অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য ও একটি নাগরিক সুবিধা সম্বলিত শহর-নগর গড়ে তোলার জন্য সংশ্লিষ্ট সকল কর্তৃপক্ষকে এগিয়ে আসতে হবে। সকল কর্তৃপক্ষেরই দেশের পরিবেশ ও নাগরিকের অধিকার রক্ষার দায় এড়াতে পারবেন না। জেলা-উপজেলা প্রশাসন ও স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানের যৌথ পরিকল্পনায় এ অবস্থা থেকে উত্তরণের উপায় বের করতে হবে। এ বিষয়টি যে শুধু নরসিংদী জেলার জন্য প্রযোজ্য তা নয়। এটি একটি জাতীয় সমস্যা হিসেবে গণ্য হতে পারে। তাই প্রয়োজনে বিষয়টি সরকারের উর্ধ্বতন নীতি নির্ধারক মহলের বিবেচনার জন্য প্রস্তাব আকারে প্রেরণ করা যেতে পারে। একজন মাননীয় সংসদ সদস্যও এ বিষয়টি স¤পর্কে পরিকল্পনা বা নীতিমালা তৈরীর জন্য জাতীয় সংসদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে পারেন।

150 total views, 5 views today

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here