1. grameendarpan@gmail.com : admi2017 :
সোমবার, ০৩ অগাস্ট ২০২০, ০৮:০৫ অপরাহ্ন

বেলাবতে দ্ইুশ বছরের চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে ঘর নির্মাণের অভিযোগ

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২৮ জুলাই, ২০২০
  • ১০ বার

স্টাফ রিপোর্টার: নরসিংদীর বেলাবতে দুইশ বছরের চলাচলের একটি পুরাতন রাস্তা বন্ধ করে ঘর নির্মাণ করার অভিযোগ উঠেছে আমিনুল হক নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। উপজেলার বিন্নাবাইদ ইউনিয়নের রাজারামপুর গ্রামের সফর আলীর ছেলে আমিনুল হক সহ তার সন্তানদের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ করেন এলাকাবাসি। এদিকে গ্রামবাসির এমন অভিযোগ অস্বীকার করে আমিনুল হকের ছেলে মোঃ নাসির বলেন এটা আমাদের ক্রয়কৃত সম্পত্তি। অন্যদিকে আমিনুল হক ও তার পরিবার কর্তৃক রাস্তা বন্ধ করে ঘর নির্মাণ করার প্রতিবাদে গ্রামবাসী বিভিন্ন দপ্তরে আবেদনসহ একাধিকবার মানববন্ধনও করেছে।
ক্ষতিগ্রস্থ গ্রামবাসী জানান, প্রায় দুইশ বছর ধরে পুরাতন এই রাস্তা দিয়ে রাজারামপুর গ্রামসহ আশেপাশের প্রায় বিভিন্ন গ্রামের লোকজন যাতায়াত করতো। রাস্তাটি ছিল এ গ্রামের মানুষদের অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা। এ রাস্তা দিয়ে কৃষি নির্ভর রাজারামপুর গ্রামের কৃষকরা তাদের উৎপাদিত কৃষিপণ্য বাজারজাত করতো। এলাকার ছেলে মেয়েরা স্কুল কলেজে যাতায়াত করতো।
কিন্তু দেড় বছর যাবত আমিনুল হক অন্যায় ভাবে নিজের জমি দাবি করে রাস্তার উপর ঘর নির্মাণ করে রাস্তা বন্ধ করে দেয়।
রাজারামপুর গ্রামের রুহুল কবির বলেন, আমাদের পূর্ব পুরুষরা এ রাস্তা দিয়ে চলাচল করতো আমরাও করেছি। কিন্তু আমিনুল হক ও তার ছেলেরা এ রাস্তার উপর ঘর নির্মাণ করে রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছে। আমাদের দাবি দীর্ঘদিনের রাস্তাটি যেন খুলে দেয়া হয়।
স্থানীয় সাবেক ইউপি সদস্য গিয়াস উদ্দিন বলেন, এ রাস্তা জনগনের চলাচলের জন্য উন্মুক্ত ছিল। কিন্তু এ রাস্তার উপর আমিনুল হক ঘর নির্মাণ করায় রাস্তাটি বন্ধ হয়ে যায়। তাছাড়া আমি ইউপি সদস্য থাকাকালীন সরকারের অর্থায়নে এ রাস্তায় মাঠি ভরাট করেছি।
অভিযুক্ত আমিনুল হকের ছেলে নাসির মিয়া বলেন, আমরা কারো জমি দখল করিনি। এটা আমাদের ক্রয়কৃত জমি।
উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) কর্মকর্তা মোঃ বেলাল হোসেন বলেন, উক্ত গ্রামের আমিনুল হক গং একটি পুরাতন রাস্তা বন্ধ করে ঘর নির্মাণ করে এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে পুরাতন রাস্তা হতে ঘর ভেঙ্গে রাস্তাটি খুলে দেয়ার জন্য আমিনুল হককে বলি। তিনি তখন ঘরের কিছু অংশ নিজ দায়িত্বে খুলে নিয়েছিলেন। কিন্তু আমি চলে আসার পর তিনি পূণরায় ঐ রাস্তার উপর ঘর নির্মাণ করেছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..