1. [email protected] : admi2017 :
  2. [email protected] : news post : news post
  3. [email protected] : taifur nur : taifur nur
November 29, 2023, 10:55 pm

মনোহরদীতে বিদ্যালয়ের মাঠ ও শ্রেণী কক্ষে পানি

Reporter Name
  • Update Time : Wednesday, September 8, 2021
  • 245 Time View

মুহা. ইসমাইল খান: আগামী ১২ সেপ্টেম্বর থেকেই ক্লাস শুরু হবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে। শিক্ষা কার্যক্রম কীভাবে চলবে, সেসব নির্দেশনা দিয়ে একটি গাইডলাইন প্রকাশ করা হয়েছে। করোনার কারণে দেড় বছর ধরে বন্ধ থাকা স্কুল-কলেজ খোলার প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে কর্তৃপক্ষ।
মনোহরদী পৌরসভা সদরে অবস্থিত সল্লাবাইদ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এবং শ্রেণী কক্ষে জলাবদ্ধতার কারণে পাঠদান মারাত্মকভাবে ব্যাহত হতে পারে। সমস্যা নিরসনে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, পৌরসভার মেয়র এবং উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তার কাছে লিখিত আবেদন করেছেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোসা. রুবিন সুলতানা। আবেদনে উল্লেখ করা হয়, পানি নিষ্কাশনের সুষ্ঠু ব্যবস্থা না থাকায় সামান্য বৃষ্টিতেই মাঠে জলাবদ্ধতা দেখা দেয়। বিদ্যালয়ের পাশে উঁচু বাড়ীর-ঘর নির্মাণ করায় বিদ্যালয়ের মাঠে পানি জমে থাকে। মাঝে মাঝে শ্রেণিকক্ষের মধ্যে পানি ওঠে। বিশেষ করে বর্ষাকাল জুড়েই বিদ্যালয়ের মাঠে জমে থাকে বৃষ্টির পানি। পানি ও কাঁদা ভেঙ্গে শিক্ষার্থীরা বিদ্যালয়ে আসে। এতে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা পড়েন দুর্ভোগে। সৌচাগার ব্যবহার করা সম্ভব হয় না। তাছাড়া বিদ্যালয় মাঠ সংলগ্ন গরুর খামার থাকায় সেখানের বর্জ্য মাঠে জমে দূর্গন্ধ ছড়ায়। এতে শিক্ষক-শিক্ষার্থী এবং বিদ্যালয়ের আশপাশের মানুষের ভোগান্তি পোহাতে হয়। স্বাস্থ্যের জন্যও মারাত্মক হুমকী।
চালানো যায় না স্বাভাবিক শিক্ষা কার্যক্রম। এই সমস্যা সমাধানে মাঠে মাটি ভরাট করে উঁচু করার দাবি জানিয়েছেন শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা।
বিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ১৯৬১ সালে ৩৩ শতাংশ জায়গা নিয়ে বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত হয়। বর্তমানে বিদ্যালয়টিতে শিক্ষার্থীর সংখ্যা ১৮৩। শিক্ষক রয়েছেন নয়জন। এই বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা প্রতি বছরই সমাপনী পরীক্ষায় ভালো ফলাফল করে থাকে। কিন্তু বিদ্যালয়ের মাঠে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হওয়ায় শিক্ষার্থীরা নিয়মিত খেলাধুলা করতে পারে না। সামান্য বৃষ্টি হলেই মাঠ পানিতে তলিয়ে যায়।
বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোসা. রুবিন সুলতানা জানান, ‘পানি নিষ্কাশনের সুষ্ঠু ব্যবস্থা নেই। এ কারণে মাঠটিতে জলাবদ্ধতা লেগেই থাকে। সামান্য বৃষ্টি হলে মাঠে পানি বেড়ে যায়। বৃষ্টির পানি জমে থাকার সমস্যার সঙ্গে ভবন সংকট রয়েছে। বিদ্যালয়ের দুটি ভবনের পাঁচটি শ্রেণিকক্ষ ঝুঁকিপূর্ণ রয়েছে। ঝুঁকিপূর্ণ কক্ষে চলছে পাঠদান।’
বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি তানভীর কবির বলেন, ‘বিদ্যালয় মাঠে জলাবদ্ধতা দীর্ঘদিনের। এই সমস্যা নিরসনে কাজ চলছে।’
মনোহরদী উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সোহরাব হোসেন ভূঞা জানান, ‘বিদ্যালয়ের মাঠ ভরাটসহ জলাবদ্ধতা দূরীকরণের জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জানানো হয়েছে। আশা করি, জরুরি ভিত্তিতে এই সমস্যার সমাধান হবে।’
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ এস এম কাসেম বলেন, ‘বিদ্যালয় পরির্দশন করে সমস্যা দেখে এসেছি। জলাবদ্ধতা নিরসনে শিগগিরই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category