স্টাফ রিপোর্টার: বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) এর বয়সভিত্তিক প্রতিভাবান ফুটবলার বাছাইয়ে সিলেট জোনের লড়াইয়ে জায়গা করে নিল নরসিংদীর সাত তরুণ। এর মধ্যে অনুর্ধ্ব-১৫ তে তিন ও ১৮ তে নির্বাচিত হয়েছেন চারজন।
কিশোরগঞ্জে ডিসট্রিক্ট ফুটবল এসোসিয়েশনের (ডিএফএ) কমিটি না থাকায় অনুর্ধ্ব-১৫ বিভাগে সেখানকার ১০ জন অংশ নিয়ে টিকেছেন দুই তরুণ। মোসলেহ উদ্দীন ভূঁইয়া জেলা স্টেডিয়ামে তিন ও চার ফেব্রুয়ারি দুইদিনের এই বাছাই প্রক্রিয়া অনুষ্ঠিত হয়।
দেশের আনাচে কানাচে ছড়িয়ে থাকা প্রতিভাবান তরুণ ফুটবলার খুঁজে বের করতে বাফুফে’র দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনার অংশ হিসেবে গত ২৮ জানুয়ারি থেকে শুরু হয় বাছাই প্রক্রিয়া। সাতটি জোনে ভাগ করে শুরু হয় বাছাই। তিন নম্বর জোনে নরসিংদী ছাড়াও আছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া, চাঁদপুর, কুমিল্লা, হবিগঞ্জ, মৌলভীবাজার,, সুনামগঞ্জ ও সিলেট। ডিএফএ’র কমিটি না থাকা জেলাগুলোর তরুণরা অবশ্য অন্য জেলায় অংশ নিতে পারছেন। আর বাছাইয়ে জেলা ভিত্তিক কোটা না থাকায় সংশ্লিষ্ট জেলাগুলোও কোন আপত্তি জানাচ্ছে না বলে জানিয়েছেন বাফুফে কর্মকর্তারা।
নরসিংদী’র বাছাই প্রক্রিয়ায় নেতৃত্ব দিয়েছেন বাফুফে কোচ জাহান-ই-আলম নূরী। তাকে সহযোগিতা করেন জাতীয় দল ও ঢাকা মোহামেডানের সাবেক ফুটবলার একইসাথে নরসিংদী জেলা ফুটবল দলের কোচ কামাল হোসেন। ছিলেন জাতীয় দলের জার্সি গায়ে জড়ানো নরসিংদীর আরেক ফুটবলার ওয়ালিদ খান। অনুর্ধ্ব-১৫ বিভাগের বাছাইয়ে নরসিংদী থেকে ৭৬ ও কিশোরগঞ্জের ১০ জন অংশ নিয়ে মোট পাঁচজন নির্বাচিত হন। এরা হলেন নরসিংদীর মো. সাদিব খান, মো. ইউসুফ ও তৌহিদুল আলম তানভীর এবং কিশোরগঞ্জের শাহীন আহমেদ ও রবিউল আউয়াল সাজ্জাদ। এদিকে, অনুর্ধ্ব-১৭ বিভাগে জায়গা করে নেয়া চার তরুণ হলেন নিপু, মো. ফরহাদ মিয়া, মো. ইয়াসিন মিয়া রাজিব ও মো. তানজিদ হোসেন। এদের মধ্যে একমাত্র গোলরক্ষক হিসেবে আছেন তানজিদ হোসেন। আগামী ১০ ফেব্রুয়ারি দেশের অন্য জেলাগুলোর প্রাথমিক বাছাই শেষ হবে।

446 total views, 3 views today