গ্রামীণ দর্পণ ডেক্সঃ- চলতি বছরের শুরুতেই বিদেশিদের কাছে জনপ্রিয় পশ্চিম ভারতে সেয়ান ফ্লু রোগে আক্রন্ত হয়ে অন্তত ৪৮ জনের মৃত্যু এবং পরীক্ষায় আরও  এক হাজার ১৭৩ জনের শরীরে এ রোগের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে।

এনডিটিভি’র খবরে বলা হয়, মানুষ থেকে মানুষের শরীরে ছড়িয়ে পড়া উচ্চমাত্রার এই সংক্রামক (H1N1 ) রোগটির কারণে গত বছর দেশটিতে প্রায় এক হাজার ১০০ মানুষের মৃত্যু হয় এবং প্রায় ১৫ হাজার আক্রান্ত হয়।

রাজস্থান রাজ্যের চিকিৎসা ও স্বাস্থ্য বিভাগের একজন মুখপাত্র বলেন, স্বাস্থমন্ত্রী ইতিমধ্যে রোগীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে সেবা দিয়ে আসার ব্যাপারে নির্দেশনা দিয়েছেন।

দেশটির জাতীয় রোগ নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্র (এনসিডিসি) জানায়, ভারতের রাজধানী দিল্লীতে গত ১৩ জানুয়ারি পর্যন্ত সোয়ান ফ্লু ভাইরাসে আক্রান্ত ১৬৮ জন রোগীকে পাওয়া যায়।

রাজস্থান ও নয়াদিল্লীসহ পশ্চিম ও উত্তর ভারতের অঞ্চলগুলোতে সাধরণত শীতকালের ডিসেম্বর-জানুয়ারি মাসে এ রোগের প্রাদুর্ভাব বেশি দেখা যায়।

এদিকে আক্রান্ত এলাকায় রাজ্য সরকার সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করেছে। এছাড়াও আগেই ওই এলাকার চিকিৎসক ও চিকিৎসা বিষয়ক কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সব ধরনের ছুটি বাতিল করা হয়েছে।

বিশ্বস্বাস্থ সংস্থার মতে সাম্প্রতিক এই সোয়াইন ইনফ্লুয়েঞ্জা মানব ইতিহাসের সবচেয়ে পর্যবেক্ষণ করা মহামারি।

সোয়াইনফ্লুতে আক্রান্ত হওয়ার উপসর্গের মধ্যে জ্বর হওয়া, মাথা ব্যথা, গলা ও শরীর ব্যথা, শ্বাস কষ্ট, ক্ষুদামন্দা ও আলস্যবোধ করা, ওজন কমে যাওয়া ইত্যাদি অন্যতম।

সূত্রঃ- ইউএনবি

415 total views, 3 views today