শিবপুরে দলীয় নির্দেশ অমান্য করায় জাপা সম্পাদকের ক্ষোভ প্রকাশ

0
34

স্টাফ রিপোর্টার: নরসিংদীর শিবপুর উপজেলা জাতীয় পার্টির দীর্ঘদিনের পরিক্ষিত নেতা হিসেবে জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক কাদির কিবরিয়া শিবপুরের সাধারণ মানুষের কাছে একজন পরিচিত মুখ। তিনি জাতীয় পার্টির জন্মলগ্ন থেকে রাজনীতির সাথে জড়িত। ১৯৮৬ সালে শিবপুর শহীদ আসাদ কলেজ শাখার জাতীয় ছাত্র সমাজের সভাপতির দায়িত্বে থাকাকালীন সাবেক রাষ্ট্রপতি আলহাজ্ব হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের হাতকে জড়িয়ে ধরে উক্ত কলেজ সরকারি করণের ঘোষণা আনেন। তিনি সাহসী ভূমিকার জন্য তখনকার শিক্ষক, সাধারণ ছাত্রছাত্রীদের ভূয়শী প্রশংসা কুড়ান এবং উক্ত কলেজ থেকে ১৯৮৮ সালে বি.এ পাশ করেন। ৯০ এর পর জেল-জুলুম, হুলিয়া মাথায় নিয়ে এই ছাত্রনেতা এরশাদ মুক্তি আন্দোলনে রাজপথ কাপিয়ে তোলেন। ৯৬ সালে খালেদা সরকারের বিরুদ্ধে শিবপুরে তিব্র আন্দোলন গড়ে তুলেন। বড়-বড় নেতারা তখন দল ছেড়ে চলে যান। তিনি নিরলস প্রচেষ্টায় তৃণমূলের সংগঠনকে শক্তিশালী করেন এবং দীর্ঘ ১০/১২ বছর উপজেলা জাতীয় যুব সংহতির সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৪ সালের উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক, উপজেলা পরিষদের ভাইস-চেয়ারম্যান অন্য দলে চলে যাওয়ার পর দলের মধ্যে ভাঙ্গন সৃষ্টি হলে দলের ক্রান্তি লগ্নে উপজেলা জতীয় পার্টির সদস্য সচিব হিসেবে দায়িত্ব পেয়ে দলকে আবারও পূনর্গঠন করেন। দলের কো-চেয়ারম্যান জি.এম কাদেরকে প্রধান অতিথি করে একটি সফল সম্মেলনের মাধ্যমে উপজেলার জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন ২০১৭ সালে। কাদির কিবরিয়া জানান দলের মধ্যে ঘাপটি মেরে থাকা একটি কুচক্রি মহল আমার সুনামের প্রতি ঈর্ষাণি¦ত হয়ে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীকে নিয়ে গণসংযোগে ব্যস্ত থাকা অবস্থায় দলের মধ্যে থাকা কতিপয় সুবিধাবাদী লোভী নেতারা প্রথমে গোপনে এবং পরে প্রকাশ্যে গত ২৯/১২/২০১৮ ইং সকালে স্বতন্ত্র প্রার্থী বিশিষ্ট শিল্পপতি আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম মোল্লাকে সমর্থন প্রদান করেন। এমন অবস্থায় কেন্দ্রীয় কমিটির নির্দেশক্রমে দলীয় প্রার্থী আলমগীর কবির ২৯/১২/২০১৮ ইং তারিখ বিকাল ৩টায় সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে মহাজোট প্রার্র্থী আলহাজ্ব জহিরুল হক ভূইয়া (মোহন) কে পূর্ন সমর্থন করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য, জেলা জাতীয় পার্টির সিনি: সহ-সভাপতি, দলের মনোয়ন প্রতাশী প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা এড. রেজাউল করিম বাসেত, উপজেলা জাপার সহ-সভাপতি, সিদ্দিকুর রহমান, উপজেলা জাপার সাধারণ সম্পাদক কাদির কিবরিয়া, ইউনিয়ন জাপার সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক সহ শতাধিক নেতাকর্মী। দলকে একজন ব্যক্তির কাছে জিম্মি না করে মহাজোট প্রার্থীকে সমর্থন করার কারণে কতিপয় নেতৃবৃন্দ দলের কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করে দলের সাধারণ সম্পাদক কাদির কিবরিয়াকে নিয়ে বিভ্রান্তকর তথ্য প্রকাশ করে। জাপার কিছু ব্যক্তিরা অসাংগঠনিক বক্ত্যবের প্রতি তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করেন। কাদির কিবরিয়া আরো বলেন, আমি জনগণের ভালবাসা নিয়ে সাধারণ মানুষের পাশে থাকতে চাই।

105 total views, 3 views today

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here