1. grameendarpan@gmail.com : admi2017 :
  2. taife.nur14@gmail.com : taifur nur : taifur nur
Title :
নরসিংদীবাসী গর্ব আর সক্ষমতার প্রতীক পদ্মা সেতু উদ্বোধন উৎসবমূখর পরিবেশে উপভোগ নরসিংদীতে রাষ্ট্রদূত মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়াকে সংবর্ধনা নরসিংদী রেল স্টেশনে তরুণী লাঞ্চিতের ঘটনায় অভিযোগ করেনি ভুক্তভোগী, ছায়া তদন্তে জেলার বিভিন্ন সংস্থা নরসিংদীতে বাংলা টিভির বর্ষপূতি উদ্যাপন ঈদ, পূজা-পার্বণ আমাদের সার্বজনীন উৎসবে পরিণত হয়েছে: পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান নাজমুল আহসান বিট পুলিশিং বাড়ি বাড়ি, নিরাপদ সমাজ গড়ি আজ আন্তর্জাতিক নার্স দিবস শিবপুরে আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের টিম পুরস্কার বিতরণের মধ্য দিয়ে নরসিংদীতে ২ দিনব্যাপী বিজ্ঞান মেলা সমাপ্ত
Title :
নরসিংদীবাসী গর্ব আর সক্ষমতার প্রতীক পদ্মা সেতু উদ্বোধন উৎসবমূখর পরিবেশে উপভোগ নরসিংদীতে রাষ্ট্রদূত মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়াকে সংবর্ধনা নরসিংদী রেল স্টেশনে তরুণী লাঞ্চিতের ঘটনায় অভিযোগ করেনি ভুক্তভোগী, ছায়া তদন্তে জেলার বিভিন্ন সংস্থা নরসিংদীতে বাংলা টিভির বর্ষপূতি উদ্যাপন ঈদ, পূজা-পার্বণ আমাদের সার্বজনীন উৎসবে পরিণত হয়েছে: পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান নাজমুল আহসান বিট পুলিশিং বাড়ি বাড়ি, নিরাপদ সমাজ গড়ি আজ আন্তর্জাতিক নার্স দিবস শিবপুরে আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের টিম পুরস্কার বিতরণের মধ্য দিয়ে নরসিংদীতে ২ দিনব্যাপী বিজ্ঞান মেলা সমাপ্ত

বাংলাদেশে পরিস্থিতি না বদলালে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত স্কুল-কলেজ বন্ধ থাকবে : প্রধানমন্ত্রী

Reporter Name
  • Update Time : Monday, April 27, 2020
  • 224 Time View

করোনাভাইরাস আপডেট
বাংলাদেশে পরিস্থিতি না বদলালে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত স্কুল-কলেজ বন্ধ থাকবে : প্রধানমন্ত্রী
গ্রামীণ দর্পণ ডেস্ক: বাংলাদেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের পরিস্থিতির উন্নতি না হলে আগামী সেপ্টেম্বর পর্যন্ত স্কুল ও কলেজ বন্ধ থাকবে বলে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
ঢাকায় গণভবনে কয়েকটি জেলার জেলা প্রশাসকদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সিং এ প্রধানমন্ত্রী আজ এ কথা জানিয়েছেন।
“স্কুল-কলেজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান একটাও আমরা এখন খুলবো না। সেটা আমরা কখন খুলবো, অন্তত সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এই স্কুল-কলেজ সবই বন্ধ থাকবে, যদিও না করোনাভাইরাস তখনো অব্যাহত থাকে।”
“যখন এটা (করোনাভাইরাস) থামবে, আমরা তখনি খুলবো।”
বাংলাদেশে মার্চ মাসের আট তারিখে প্রথম করোনাভাইরাস আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত হবার পর ১৬ই মার্চ সরকার ঘোষণা দেয়, ১৭ই মার্চ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত স্কুল, কলেজসহ সব ধরণের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও কোচিং সেন্টার বন্ধ থাকবে।
তবে এর আগেই ঢাকার অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নিজ উদ্যোগে কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করে।
পয়লা এপ্রিল থেকে শুরু হতে যাওয়া এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষাও তখন স্থগিত করা হয়।
এদিকে, সরকারের ঘোষিত সাধারণ ছুটিতে কার্যত লকডাউন পরিস্থিতির কারণে এ বছরের এসএসসি অর্থাৎ মাধ্যমিক ও সমমান পরীক্ষার ফল এখনো প্রকাশ করা হয়নি।
ঐ পরীক্ষায় ২০ লাখের বেশি শিক্ষার্থী পরীক্ষা দিয়েছিল।
পরে সরকার যখন প্রথম দফা সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে, তখন সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছুটির মেয়াদ ৯ই এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ানো হয়।
ওই সময় পর্যন্ত সকল স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা, বিশ্ববিদ্যালয় ও কোচিং সেন্টারের শ্রেণীকক্ষে পাঠদান বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয় শিক্ষা মন্ত্রনালয়।
এরপর দফায় দফায় সাধারণ ছুটির মেয়াদ বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছুটির মেয়াদ বাড়ানো হয়।
সর্বশেষ করোনাভাইরাস পরিস্থিতি আগামী ৫ই মে পর্যন্ত সাধারণ ছুটি বৃদ্ধি করেছে সরকার।
সরকারের এই ছুটির সঙ্গে সমন্বয় করেই মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আগামী ৫ মে পর্যন্ত বন্ধ থাকবে বলে জানিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।
এই সময়ের মধ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা যাবে না বলে ২৩শে এপ্রিল সরকারের এক প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়েছে।
তবে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় ঈদুল ফিতর পর্যন্ত সব প্রাথমিক বিদ্যালয় ছুটি ঘোষণা করেছে।
সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিডিও কনফারেন্স শুরু হয়। প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে রাজশাহী বিভাগের জেলাগুলোর সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে মতবিনিময় করেছেন তিনি।
জেলাগুলো হলো- বগুড়া, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, জয়পুরহাট, নওগাঁ, নাটোর, পাবনা, রাজশাহী এবং সিরাজগঞ্জ।
ভিডিও কনফারেন্সে প্রধানমন্ত্রী বিভিন্ন জেলার জেলা প্রশাসক, পুলিশ বাহিনী, সিভিল সার্জন, নার্স, রাজনৈতিক ব্যাক্তি, সেনাসদস্য, মসজিদের ইমাম, শিক্ষকসহ বিভিন্ন পেশাজীবীর সঙ্গে করোনা পরিস্থিতি ও ত্রাণ বিতরণ নিয়ে মতবিনিময় করেছেন।
অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেছেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস। বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বাংলাদেশ বেতার অনুষ্ঠানটি সরাসরি সম্প্রচার করছে।
এর আগে প্রধানমন্ত্রী করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে চার দফা পৃথক ভিডিও কনফারেন্সে ঢাকা, চট্টগ্রাম, খুলনা, সিলেট, বরিশাল এবং ময়মনসিংহ বিভাগের ৪৮টি জেলার সঙ্গে মতবিনিময় করেন।
ভিডিও কনফারেন্সে প্রধানমন্ত্রী জনগণকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানানোর পাশাপাশি সংকট উত্তরণে বিভিন্ন প্রণোদনা প্যাকেজেরও ঘোষণা দেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category