1. grameendarpan@gmail.com : admi2017 :
  2. taife.nur14@gmail.com : taifur nur : taifur nur
August 16, 2022, 10:02 pm

শহীদ মিনার ধসে শিশু নিহতের ঘটনায় বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বরখাস্ত নিহতের পরিবারকে ১ লক্ষ ২৫ হাজার টাকা আর্থিক সহায়তা

Reporter Name
  • Update Time : Monday, October 4, 2021
  • 50 Time View

পলাশ প্রতিনিধি: নরসিংদীর পলাশ উপজেলার গজারিয়া ইউনিয়নে শহীদ মিনারের পিলার ধসে জান্নাতি আক্তার (২) নামে এক শিশুর মৃত্যুর ঘটনায় সেকান্দরদী এ এম উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক খোরশেদ আলমকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। রোববার সকালে সেকান্দরদী এ এম উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির এক জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এছাড়া উপজেলা মাধ্যমিক অফিসের পক্ষ থেকে সেকান্দরদী এ এম উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক খোরশেদ আলমকে শোকজ করা সহ ঘটনাটি তদন্তের জন্য তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। নিহত জান্নাতি আক্তার সেকান্দরদী গ্রামের রাব্বি মোল্লার মেয়ে। তথ্যটি নিশ্চিত করে পলাশ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফারহানা আফসানা চৌধুরী জানান, শহীদ মিনারের পিলার ধসে শিশু জান্নাতি আক্তার নিহতের ঘটনায় রোববার সকালে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির এক সভা শেষে জান্নাতির পরিবারকে ১ লক্ষ টাকা আর্থিক সহায়তা বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির পক্ষ থেকে দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া শনিবার রাতেই উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাৎক্ষণিক ভাবে নিহত শিশু জান্নতির পরিবারকে ২৫ হাজার টাকা আর্থিক সহায়তা প্রদান করেন উপজেলা চেয়ারম্যান সৈয়দ জাবেদ হোসেন ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফারহানা আফসানা চৌধুরী। তাছাড়া রোববার সকালে শিশু জান্নাতি আক্তারের নিহতের ঘটনায় ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক খোরশেদ আলমকে কারণ দর্শানোর শোকজ করেন পলাশ উপজেলা শিক্ষা অফিসার মিলন কৃষ্ণ হালদার। এ ব্যাপারে পলাশ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফারহানা আফসানা চৌধুরী জানান, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের গাফলতির কারণেই এই দুর্ঘটনাটি ঘটেছে। এ ঘটনায় প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। পাশাপাশি নিহত শিশুটির পরিবারকে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ও বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়। তাছাড়া তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন আসলে ওই প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে স্থায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
উল্লেখ, নিহত জান্নাতি আক্তার গত শনিবার (২ অক্টোবর) বিকেলে বাড়ির পাশে সেকান্দরদী এ এম উচ্চ বিদ্যালয়ের শহীদ মিনারে পাশে খেলা করছিল। হঠাৎ শহীদ মিনারের একটি পিলার ভেঙে শিশু জান্নাতির ওপর পড়ে। এতে মাথায় গুরুত্বর আঘাত পেয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে সে। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসক শিশুটিকে মৃত বলে ঘোষণা করে। এদিকে এ ঘটনার খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে গ্রামবাসী ঘটনাটির প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল করে। পরে পলাশ উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা ফারহানা আফসানা চৌধুরী ও থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।
উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কারিউল্লাহ সরকার জানান, দীর্ঘদিন ধরে বিদ্যালয়ের শহীদ মিনারটি ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় ছিল। কিন্তু বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সেটি মেরামত না করে দড়ি দিয়ে পিলারটি গাছের সাথে বেধে রাখে। যার কারণে এই দুর্ঘটনাটি ঘটে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category