1. [email protected] : admi2017 :
  2. [email protected] : news post : news post
  3. [email protected] : taifur nur : taifur nur
April 20, 2024, 7:17 pm
সর্বশেষ সংবাদ
নরসিংদীতে ৪২ কেজি গাঁজা ও ১৫০ বোতল ফেন্সিডিলসহ গ্রেফতার উপজেলা নির্বাচন: মন্ত্রী-এমপিদের ‘হস্তক্ষেপ’ ঠেকাতে কঠোর আওয়ামী লীগ তৈরি পোশাকে শুল্কের বিরোধিতায় যুক্তরাষ্ট্রের ক্রেতারা কক্সবাজারের পর্যটন সম্ভাবনা স্মার্ট বাংলাদেশ:  খেলাধুলা করে কেউ খালি হাতে ফিরে যায় না আগে ঘরের ছেলেরা নিরাপদে ঘরে ফিরুক উপজেলা নির্বাচনে শুধু প্রার্থী নয়, যে কেউ প্রভাব বিস্তার করবে তার বিরুদ্ধেও পদক্ষেপ নেয়া হবে: ইসি মো. আলমগীর নরসিংদী জেলা পুলিশের নিয়মিত অভিযানে ১১ কেজি গাঁজা ও ১০৫ পিস ইয়াবা উদ্ধার গ্রেফতার ০৩ নরসিংদীতে ইউপি সদস্য খুন ‘ইসমাইলকে জিজ্ঞাসাবাদ করলেই জড়িত সবার নাম-পরিচয় জানা যাবে’ অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনারে বিরুদ্ধে অপপ্রচারের প্রতিবাদে ৯৮ ব্যাচ বন্ধুদের সংবাদ সম্মেলন

রায়পুরায় আরও ৭৫ পরিবার পাচ্ছেন স্বপ্নের ঠিকানা

প্রতিবেদকের নাম
  • পোস্টের সময় Sunday, March 19, 2023
  • 187 বার দেখা হয়েছে

ডেস্ক রিপোর্ট:
আশ্রয়নে অধিকার, শেখ হাসিনার উপহার এই শ্লোগানকে সামনে রেখে নরসিংদীর রায়পুরায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আশ্রয়ণ প্রকল্পের বাসিন্দাদের জীবন-মানের পরিবর্তন শুরু হয়েছে।
জানা যায়, “দেশের একটি পরিবারও ভূমিহীন ও গৃহহীন থাকবে না” বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন ও মুজিববর্ষে বঙ্গবন্ধুর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন রায়পুরা উপজেলা প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্টরা। এরই ধারাবাহিকতায় আশ্রয়ণ প্রকল্প-২ এর আওতায় উপজেলায় ১৭৭টি পরিবার পেয়েছেন দুই শতাংশ জমি ও একটি সেমিপাকা ঘর। সেই সাথে পাচ্ছেন বিদ্যুৎ সংযোগ, সুপিয় পানির ব্যবস্থাসহ সকল ধরনের নাগরিক সুবিদা পাচ্ছেন। ইতিমধ্যে ১’শ ২টি পরিবার আশ্রয়ণে বসবাস করছেন এবং ৭৫টি ঘর নির্মাণাধীন রয়েছে। আসছে ২২ মার্চ হস্তান্তর করা হবে বলে জানা গেছে।
সরেজমিনে রায়পুরা উপজেলার চরসুবুদ্ধি ও হাইরমারা আশ্রয়ণ প্রকল্পে দেখা গেছে, সময়ের সাথে এখন বদলেছে ছিন্নমূল মানুষের যাপিত জীবন। কবির ওই ভেন্না পাতার ছাউনি থেকে তারা এখন বসবাস করছে রঙিন টিন আর পাকা দেয়ালের আধাপাকা বাড়িতে। সেই বাড়িতেই করছেন শাক-সবজির আবাদ। কেউবা করছে হাঁস মুরগি-ছাগল-গরু পালন। সন্তানদের পাঠাচ্ছেন স্কুলে। বসতির দুশ্চিন্তা ছেড়ে নিশ্চিন্ত মনে কাজ করে এগিয়ে নিচ্ছে সংসার। সংসারে এসেছে অর্থনৈতিক স্বচ্ছলতা। বসবাসের জন্য সরকারের দেওয়া এই সুবিধাটি পেয়ে মহাখুশি আশ্রয়হীন মানুষগুলো।
রায়পুরায় আশ্রয়ণ প্রকল্পের বাসিন্দারা ইতোমধ্যে গঠন করেছেন বেশ কয়েকটি সমবায় সমিতি। উপজেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় ড্রাইভিং, কৃষি, মৎস্য, ব্লক বাটিক, সেলাই কাজ সহ বিভিন্ন প্রশিক্ষন নিচ্ছে তারা। অনেকের একাডেমিক শিক্ষা না থাকলেও নানা প্রশিক্ষণে হয়ে উঠছেন স্বশিক্ষিত। জেলা প্রশাসন ও উপজেলা প্রশাসনের নিয়মিত তদারকিতে ক্রমেই সময়ের সঙ্গে সঙ্গে উন্নয়নের নানা দিকে এগিয়ে যাচ্ছে আশ্রয়ণ প্রকল্পের বাসিন্দারা।
প্রকল্পে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর পাওয়া রায়পুরা উপজেলার আশ্রয়ণের বাসিন্দা লাকি, শাজাহান মিয়া, লাল মিয়াসহ আরো অনেকেই জানান, ‘কিছু দিন আগেও ভাবিনি নিজের ভালো একটা ঠিকানা হবে। এখন সেটি হয়েছে, বাচ্চাদের স্কুলে পাঠাতে পারছি। নিজের হাঁস-মুরগি পালনসহ নানা কাজ করার সুযোগ পেয়েছি- সত্যিই এটা স্বপ্নের। এমনটি হবে ভাবিনি, সৃষ্টিকর্তার কাছে শেখ হাসিনার জন্য দোয়া করি।’
উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা প্রকৌশলী মো. বোরহান উদ্দিন বলেন, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, স্বাধীনতার মহানায়ক জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুজিববর্ষ উপলক্ষে আশ্রয়ণ প্রকল্প-২ এর আওতায় জেলায় হতদরিদ্র যাদের বসবাসের কোন ঠিকানা ছিল না, তাদের স্থায়ী আশ্রয়ের ব্যবস্থা করেছেন। এটা সত্যিই বিস্ময়কর। ওই মানুষগুলো তাদের ভাগ্যে চাকা নতুনভাবে ঘুরাতে শুরু করেছে। নতুন করে আরও ৭৫টি ঘর আগামী ২২মার্চ উদ্বোধন হতে যাচ্ছে, তন্মধ্যে আদিয়াবাদ ১৫টি, অলিপুরা ৫টি ও হাসিমপুর এলাকায় ৫৫টি।
রায়পুরা উপজেলার নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মো. আজগর হোসেন জানান, আশ্রয়ন প্রকল্পের বাসিন্দারা তাদের জীবন মান উন্নয়নে নিজেরাই এগিয়ে এসেছে। আমরা সরকারের পক্ষ থেকে তাদের সহযোগিতা করছি। চরসুবুদ্ধি আশ্রয়ণ প্রকল্পে ইতিমধ্যে ২০টি সেলাই মেশিন বিতরণ করেছি। শুধু তাই নয়, বিভিন্ন আশ্রয়ণ কেন্দ্রের মধ্য থেকে শতাধিক ছেলে মেয়েদেরকে ড্রাইভিং, কৃষি, মৎস্য, ব্লক বাটিক, সেলাইসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে প্রশিক্ষনের আওতায় নিয়ে এসেছি। তারা এখন অনেক ভালো আছে। এই প্রকল্প বিশেষ একটি রোল মডেল। কারণ এভাবে কোন দেশে আশ্রয়হীনদের জন্য সরকারিভাবে নিরাপদ ছাদ তৈরি করা হয়নি। জমিসহ আরও ৭৫টি ঘর নির্মাণকাজ শেষ হয়েছে। ২২মার্চ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আনুষ্ঠানিক ভাবে এই ঘরগুলো হস্তান্তরের মাধ্যমে শেষ হবে রায়পুরা উপজেলাকে ‘ক শ্রেণী’র আওতায় গৃহহীন ও ভূমিহীন মুক্ত ঘোষনা করবেন।
কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা মন্ডলির সদস্য, সাবেক মন্ত্রী রাজিউদ্দিন আহমেদ রাজু এমপি জানান, আমরা ইতিমধ্যে ১শ ২’জন ভূমিহীন ও গৃহহীনদের মাঝে জমির দলিলসহ ঘর হস্তান্তর করেছি। আগামী ২২মার্চে আরও ৭৫টি ঘর হস্তান্তর করা হবে। নজীর বিহীন এমন মহতি উদ্যোগ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের দ্বারাই বাস্তবায়ন করা সম্ভব হয়েছে। যা বিশ্বের ইতিহাসে রোল মডেল। তাই উন্নয়নের দ্বারা অব্যাহত রাখতে আবারও নৌকায় ভোট প্রদানে আহ্বান জানান তিনি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো দেখুন