1. grameendarpan@gmail.com : admi2017 :
  2. taife.nur14@gmail.com : taifur nur : taifur nur
বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৬:৩৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
সুন্দর সমাজ গঠনে খেলাধুলার বিকল্প নেই -সামসুল আলম ভূঞা রাখিল রায়পুরার নির্বাচনী মাঠে শিবপুর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সামসুল আলম ভূঞা রাখিল পলাশের দুই ইউপিতে প্রার্থীদের মনোনয়ন দাখিল পলাশের জিনারদী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিল করলেন প্রফেসর কামরুল ইসলাম গাজী মনোহরদীর বড়চাপা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিল করলেন এম সুলতান উদ্দিন চিনিশপুর ইউপি নির্বাচনে ৩নং ওয়ার্ডের মেম্বার পদে জনপ্রিয়তার শীর্ষে সায়েম ভূঁইয়া আমদিয়া ইউনিয়নে নির্বাচনী এলাকায় আচরণ বিধি ভঙ্গের দায়ে প্রার্থীকে অর্থদন্ড প্রদান ভগীরথপুর লাল মিয়া মোল্লা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে নৌকার সমর্থনে উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত কাঁঠালিয়া ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রে কর্তব্য অবহেলায় নবজাতক শিশু মৃত্যুর অভিযোগ র‌্যাব-১১ এর অভিযানে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জেএমবির ১ সক্রিয় সদস্য গ্রেফতার
শিরোনাম :
সুন্দর সমাজ গঠনে খেলাধুলার বিকল্প নেই -সামসুল আলম ভূঞা রাখিল রায়পুরার নির্বাচনী মাঠে শিবপুর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সামসুল আলম ভূঞা রাখিল পলাশের দুই ইউপিতে প্রার্থীদের মনোনয়ন দাখিল পলাশের জিনারদী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিল করলেন প্রফেসর কামরুল ইসলাম গাজী মনোহরদীর বড়চাপা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিল করলেন এম সুলতান উদ্দিন চিনিশপুর ইউপি নির্বাচনে ৩নং ওয়ার্ডের মেম্বার পদে জনপ্রিয়তার শীর্ষে সায়েম ভূঁইয়া আমদিয়া ইউনিয়নে নির্বাচনী এলাকায় আচরণ বিধি ভঙ্গের দায়ে প্রার্থীকে অর্থদন্ড প্রদান ভগীরথপুর লাল মিয়া মোল্লা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে নৌকার সমর্থনে উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত কাঁঠালিয়া ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রে কর্তব্য অবহেলায় নবজাতক শিশু মৃত্যুর অভিযোগ র‌্যাব-১১ এর অভিযানে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জেএমবির ১ সক্রিয় সদস্য গ্রেফতার

নরসিংদীতে ছাড়া পেলেন বিএনপির অবরুদ্ধ তিন শতাধিক নেতা-কর্মী

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২৩ নভেম্বর, ২০২১
  • ৪ বার

ডেস্ক রিপোর্ট: নরসিংদীতে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও জেলা বিএনপির সভাপতি খায়রুল কবির খোকনসহ অন্তত তিন শতাধিক নেতাকর্মী অবরুদ্ধ হয়েছিলেন। সোমবার সন্ধ্যায় সদরের চিনিশপুরে জেলা বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয়ে।
নরসিংদীতে বিএনপির কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ও জেলা বিএনপির সভাপতি খায়রুল কবিরসহ তিন শতাধিক নেতা-কর্মী অবরুদ্ধ অবস্থা থেকে ছাড়া পেয়েছেন। সাড়ে ছয় ঘণ্টা অবরুদ্ধ থাকার পর সোমবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে সদর উপজেলার চিনিশপুরে জেলা বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয় থেকে বের হয়েছেন তাঁরা। এর পর খায়রুল কবির তাঁর গাড়িতে করে ঢাকার উদ্দেশ্যে নরসিংদী ছাড়েন।
জেলা বিএনপির নেতা-কর্মীরা বলছেন, বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে সুচিকিৎসার দাবিতে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছিল। বেলা তিনটার দিকে চিনিশপুরে জেলা বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয়ের ভেতরে প্যান্ডেল করে কর্মসূচি শান্তিপূর্ণভাবে শুরু হয়। পাঁচ শতাধিক দলীয় নেতা-কর্মী এই বিক্ষোভ সমাবেশে যোগ দেন। বিকেল পাঁচটার দিকে জেলা পুলিশের একদল সদস্য সেখানে হাজির হয়ে বেশ কয়েকজন নেতা-কর্মীকে আটক করে নিয়ে যান। পরে গ্রেপ্তারের ভয়ে দলীয় নেতা-কর্মীরা কার্যালয়ের গেট ভেতর থেকে তালাবদ্ধ করে রাখেন। এর পর থেকেই বাইরে থেকে পুলিশ কার্যালয়টি ঘিরে রাখে।
সরেজমিনে দেখা যায়, বিকেল থেকেই দলীয় কার্যালয়টির প্রধান ফটকের ২০ গজ দূরত্বে অবস্থান নেন পুলিশ সদস্যরা। এ সময় কার্যালয়টির দুই পাশের সড়কে খন্ড খন্ড দলে ভাগ হয়ে অবস্থান নেন অন্তত শতাধিক পুলিশ।
এই ঘটনায় অবরুদ্ধ হয়ে থাকা নেতাদের মধ্যে ছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ও জেলা বিএনপির সভাপতি খায়রুল কবির, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন মাস্টার, সহসভাপতি দীন মোহাম্মদ, যুগ্ম সম্পাদক আকবর হোসেন, শহর বিএনপির সভাপতি এ কে এম গোলাম কবির, সাধারণ সম্পাদক ফারুক উদ্দীন ভূঁইয়া, জেলা বিএনপির দপ্তর সম্পাদক আমিনুল হক, জেলা যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক মোকাররম ভূঁইয়া, হাজীপুর ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম, ছাত্রদল নেতা সিদ্দিকুর রহমান প্রমুখ।
অবরুদ্ধ অবস্থা থেকে ছাড়া পাওয়ার পর বিএনপির কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ও জেলা বিএনপির সভাপতি খায়রুল কবির বলেন, ‘একটি স্বাধীন দেশে রাজনৈতিক দলের কর্মী হিসেবে সভা-সমাবেশ করা আমাদের গণতান্ত্রিক অধিকার। অথচ এই অধিকারটুকুও তারা আমাদের দিতে চান না। শত শত মানুষ আমাদের সভা-সমাবেশে যোগ দেন। এই কারণে তারা আমাদের নিয়ে আতঙ্কিত হয়ে পড়ছেন।’
এ সময় খায়রুল কবির আরও বলেন, ‘জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে থাকা খালেদা জিয়া বিনা চিকিৎসায় মৃত্যুবরণ করুক, এটাই তারা চায়। বিদেশে না পাঠিয়ে তাঁকে বিনা চিকিৎসায় মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেওয়ার দায় বর্তমান প্রধানমন্ত্রীকে নিতে হবে।’
জানতে চাইলে নরসিংদীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) সাহেব আলী পাঠান প্রথম আলোকে বলেন, ‘বিএনপির দলীয় কার্যালয়ের ভেতরে দলটির নেতা-কর্মীদের অবরুদ্ধ করার কোনো ঘটনা ঘটেনি। তাঁরা নিজেরাই কার্যালয়টির প্রধান ফটকে তালা মেরে রেখেছিলেন। কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা যেন না ঘটে, শুধু সে জন্য দলীয় কার্যালয়ের বাইরের রাস্তায় পুলিশ সদস্যরা অবস্থান নিয়েছেন। তাদের সন্দেহ কেটে গেলে তারা নিজেরাই এক এক করে বেরিয়ে যান।’

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..