1. grameendarpan@gmail.com : admi2017 :
  2. taife.nur14@gmail.com : taifur nur : taifur nur
August 16, 2022, 10:16 pm

বাংলাদেশ পুলিশের স্বনামধন্য খেলোয়াড় রুহুল আমীন আসাদ এর ইন্তেকাল

Reporter Name
  • Update Time : Tuesday, November 2, 2021
  • 58 Time View

মো: জসিম উদ্দিন: বাংলাদেশ পুলিশ এর একজন সাবেক সদস্য ও পুলিশের স্বনামধন্য খেলোয়াড় শিক্ষানুরাগী ব্যক্তিত্ব রুহুল আমীন (আসাদ) ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহে ওয়াইন্না ইলাইহে রাজেউন)। চাকুরী থেকে অবসরের পর দীর্ঘ অনেক বছর শারীরিক ভাবে তিনি সুস্থ ছিলেন। গত কয়েক বছর যাবত তিনি বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে পরেন। গত ২/৩ মাস যাবত তাঁর শরীরে রক্ত শূন্যতা দেখা দেয়। রক্ত শরীরে পুরণ করার পরও বার বার রক্ত শূন্য হয়ে পড়েন। এতে তাঁর শরীরে রক্ত পুরণের জন্য বহু মানবিক ব্যক্তিগন এগিয়ে আসেন। এতে আমাদের দেশের স্বনামধন্য টিভি চ্যানেল বাংলাভিশন এর ভূমিকা ছিল অনেক। এত মানুষ রক্ত দেয়ার পরও রুহুল আমীনের শরীরে রক্তের কার্যকারিতা সৃষ্টি হয়নি। রাজধানীর একটি উন্নত প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসা চলাকালীন বহু মানুষ রক্ত দেয়ার জন্য হাসপাতালে ভীঢ় জমায়। এরপর সাবেক এ পুলিশ সদস্যের শরীরের কিছুটা উন্নতি দেখা দেয়। এর মধ্যে চিকিৎসকগণ তাঁকে বাড়ীতে নিয়ে আসার জন্য ছাড়পত্র দেন। বাড়ীতে নিয়ে আসর পর গত ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে হঠাৎ তাঁর স্বাস্থ্যের অবনতি দেখা দিলে ২৯ সেপ্টেম্বর দিবাগত শেষ রাতে আল্লাহ তা আলার ডাকে সাড়া দিয়ে এ পৃথিবীর মায়া ছেড়ে তিনি পরপারে চলে যান। তিনি ১ স্ত্রী ৪ ভাই ২ বোনসহ বহু আত্মীয়স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। পরদিন ৩০ সেপ্টেম্বর তাঁর চন্দনপুর পূর্বপাড়া কবরস্থানে দাফন করা হয়। মরহুম রুহুল আমীন (আসাদ) চাকুরী থেকে অবসর গ্রহণের পর চালাকচর বাজারের বাসায় বসবাস করতেন। চাকুরী জীবনে তিনি অত্যন্ত সৎ ছিলেন। তিনি বাংলাদেশ পুলিশের খেলোয়াড় হিসেবে ফুটবল, ভলিবল, ব্যাটমিন্টন খেলায় অংশগ্রহণ করে ব্যাপক সুনাম অর্জন করে বহু সম্মানী ও পুরস্কার পেয়েছেন। এছাড়া তিনি বাইসাইকেল চালাতে অত্যন্ত পারদর্শি ছিলেন। ছাত্রজীবনে তিনি সাইকেল দৌড় প্রতিযোগিতায় বরাবরই প্রথম স্থান অধিকার করেছিলেন। এই ৪টা খেলাই তিনি ভাল খেলতে পারতেন। তবে তিনি ক্রিকেট খেলা খুব পছন্দ করতেন না। জীবদ্দশায় একটা দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান করার স্বপ্ন দেখতেন। জন্মভূমি চন্দনপুর গ্রামে তিনি জমি না পেয়ে মনোহরদী উপজেলার বড়মির্জাপুর তাঁর শ^শুরবাড়ীতে একটি দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান তুর্কী আবদুল হামিদ ইসলামীয়া মাদরাসার নির্মাণ কাজের দায়িত্ব পালন করেছেন। মৃত্যুর এক সপ্তাহ পূর্বে তিনি চন্দনপুর পূর্বপাড়া নুরানী হাফিজিয়া মাদরাসায় কিছুটাকা দান করে গেছেন। মরহুম রুহুল আমীন সাংবাদিক জসিম উদ্দিনের কাকা।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category