1. grameendarpan@gmail.com : admi2017 :
  2. taife.nur14@gmail.com : taifur nur : taifur nur
May 21, 2022, 11:23 pm
Title :
নরসিংদী রেল স্টেশনে তরুণী লাঞ্চিতের ঘটনায় অভিযোগ করেনি ভুক্তভোগী, ছায়া তদন্তে জেলার বিভিন্ন সংস্থা নরসিংদীতে বাংলা টিভির বর্ষপূতি উদ্যাপন ঈদ, পূজা-পার্বণ আমাদের সার্বজনীন উৎসবে পরিণত হয়েছে: পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান নাজমুল আহসান বিট পুলিশিং বাড়ি বাড়ি, নিরাপদ সমাজ গড়ি আজ আন্তর্জাতিক নার্স দিবস শিবপুরে আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের টিম পুরস্কার বিতরণের মধ্য দিয়ে নরসিংদীতে ২ দিনব্যাপী বিজ্ঞান মেলা সমাপ্ত নরসিংদীতে রমজান উপলক্ষে মহাসড়কে যানজট ও দুর্ঘটনা প্রতিরোধে সভা অনুষ্ঠিত পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষ্যে বিশেষ প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত
Title :
নরসিংদী রেল স্টেশনে তরুণী লাঞ্চিতের ঘটনায় অভিযোগ করেনি ভুক্তভোগী, ছায়া তদন্তে জেলার বিভিন্ন সংস্থা নরসিংদীতে বাংলা টিভির বর্ষপূতি উদ্যাপন ঈদ, পূজা-পার্বণ আমাদের সার্বজনীন উৎসবে পরিণত হয়েছে: পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান নাজমুল আহসান বিট পুলিশিং বাড়ি বাড়ি, নিরাপদ সমাজ গড়ি আজ আন্তর্জাতিক নার্স দিবস শিবপুরে আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের টিম পুরস্কার বিতরণের মধ্য দিয়ে নরসিংদীতে ২ দিনব্যাপী বিজ্ঞান মেলা সমাপ্ত নরসিংদীতে রমজান উপলক্ষে মহাসড়কে যানজট ও দুর্ঘটনা প্রতিরোধে সভা অনুষ্ঠিত পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষ্যে বিশেষ প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত

নরসিংদীবাসীর ভালবাসায় দৈনিক গ্রামীণ দর্পণ এর ২৯ বছরে পদার্পণ

Reporter Name
  • Update Time : Sunday, April 3, 2022
  • 12 Time View

স্টাফ রিপোর্টার: পহেলা এপ্রিল ২০২২ খ্রি. নরসিংদীর একমাত্র সরকারি মিডিয়া তালিকাভুক্ত দৈনিক সংবাদপত্র দৈনিক গ্রামীণ দর্পণ ২৮ পেরিয়ে ২৯ বছরে পদার্পণ করলো। ১৯৯৪ সালের এই দিনে গ্রামীণ দর্পণ দৈনিক হিসেবে প্রকাশনার যাত্রা শুরু করেছিল। দৈনিক গ্রামীণ দর্পণ এর এই শুভদিনে আমরা পত্রিকার পক্ষ থেকে নরসিংদী তথা সারা দেশের সর্বস্তরের মানুষের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ভালোবাসা জানাচ্ছি। কেননা আপনাদের ভালোবাসা না থাকলে গ্রামীণ দর্পণ এতোটা পথ পেরোতে পারতো না। আজ সকল শুভানুধ্যায়ি, নরসিংদীবাসী ও পাঠকের ভালবাসায় সিক্ত গ্রামীণ দর্পণ। প্রিয় পাঠক ও শুভানুধ্যায়িদের অনুপ্রেরণায় দৈনিক গ্রামীণ দর্পণ প্রিন্ট এবং অনলাইন সংস্করণ নিয়মিত পাঠকদের উপস্থাপন করে যাচ্ছে।
গ্রামীণ দর্পণ বিশ্বাস করে একদিন বাংলাদেশ হয়ে উঠবে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সোনার বাংলা। অনেক চড়াই উৎড়াই পেরিয়ে, অনেক যুদ্ধ বিগ্রহ পার করে দৈনিক গ্রামীণ দর্পণ আজ নরসিংদীর সর্বস্তরের মানুষের হৃদ মাঝারে স্থান করে নিয়েছে। জনজীবনকে শিক্ষা ও সভ্যতায় সজীব করে তোলা এবং সে সঙ্গে এলাকার সামাজিক, অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যিক কর্মকা-ে প্রাণ সঞ্চার দৈনিক গ্রামীণ দর্পণ এর মূল উপজীব্য বিষয়। নরসিংদীবাসী প্রত্যাশা পূরণে অঙ্গীকারাবদ্ধ দৈনিক গ্রামীণ দর্পণ তাদের মাঝে আশার সঞ্চার করতে চায়। সামাজিক পরিবর্তনের এই অঙ্গীকার নিয়ে দৈনিক গ্রামীণ দর্পণ জন্মগ্রহণ করেছিল। জন্ম থেকেই গ্রামীণ দর্পণ এর দৃষ্টিভঙ্গি ছিল অবাণিজ্যিক ও সামাজিক। সমাজ পরিবর্তনের দৃষ্টিভঙ্গি নিয়েই এই পত্রিকাটি পরিচালিত হয়। তাই আমরা বলে থাকি : ‘আমার নরসিংদী আমার দেশ-বদলে দিতে চাই আমরা।’
গ্রামীণ দর্পণ দেশের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব, অখ-তা এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও আদর্শ, বাংলাদেশের ইতিহাস ও ঐতিহ্য, শিক্ষা ও সংস্কৃতি, সামাজিক ও ধর্মীয় মূল্যবোধ, জাতীয় সংহতি ও রাষ্ট্রীয় ভাবমূর্তি, জাতীয় নিরাপত্তা, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি অক্ষুন্ন রাখা, ধর্ম, সম্প্রদায় বা গোষ্ঠীর অনুভুতি রক্ষা করা ইত্যাদি সর্ববিধ বিষয়ে বিশ্বাস এবং লালন করে।
প্রিয় পাঠক দৈনিক হিসেবে গ্রামীণ দর্পণ এর পথচলা শুরু হয়েছিল ১৯৯৪ সালে। দীর্ঘ পথ পরিক্রমায় গ্রামীণ দর্পণ অর্জন করতে পেরেছে নরসিংদীবাসীর আস্থা ও বিশ^াস। কুড়িয়েছে বস্তুনিষ্ঠ ও সাংবাদিকতায় সাহসিকতার ভূয়শী প্রশংসা। দৈনিক গ্রামীণ দর্পণ নরসিংদী জেলার মনোহরদী উপজেলার ঐতিহ্যবাহী চালাকচর বাজারের একটি ছোট্ট টিনের ঘরে মাসিক মনোহরদী দর্পণ হিসেবে জন্মগ্রহণ করেছিল ১৯৮৭ সালের সেপ্টেম্বর মাসে। এভাবে কয়েক বছর চলার পর ১৯৯০ সালের জুলাই মাসে পাক্ষিক হিসেবে এর প্রকাশনা শুরু হয়। পরে সময়ের প্রয়োজনে কালের বিবর্তনে ১৯৯৪ সালের মার্চ মাসের ৬ তারিখ এটি দৈনিক হিসেবে ঘোষণাপত্র লাভ করে এবং পহেলা এপ্রিল দৈনিক হিসেবে যাত্রা শুরু করে। ১৯৮৭ সালে পত্রিকাটির ১ম সংখ্যায় মনোহরদী উপজেলার কৃতি সন্তান প্রাচ্যের অক্সফোর্ড খ্যাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রয়াত সাবেক ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর আব্দুল মান্নান, তৎকালীন যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের মহা পরিচালক লে. কর্ণেল (অব.) মো. জয়নাল আবেদীন ও লে. কর্ণেল (অব.) আব্দুল রউফ শুভেচ্ছা জানিয়ে আমাদের প্রকাশনাকে উৎসাহিত করেছিলেন। সে সময়ে স্থানীয় পাঠকের কাছে পত্রিকাটি বেশ সাড়া ফেলতে সক্ষম হয়েছিল। এরই ধারাবাহিকতায় ১৯৯০ সালে গ্রামীণ দর্পণ পাক্ষিক পত্রিকায় রূপান্তরিত হয় এবং পুরো জেলায় বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের নজর কাঁড়তে পেরেছিল। ম্যাগাজিন সাইজে কখনো সাদাকালো, কখনো রঙিন এভাবে সাধারণ সংবাদের পাশাপাশি বিভিন্ন নিয়মিত কলাম প্রকাশ করে পাঠক সমাজের প্রশংসা কুড়িয়েছিল। সে সময়ের পাঠক সমাজের অনুপ্রেরণায় পরে ১৯৯৪ সালে দৈনিক হিসেবে পত্রিকাটি যাত্রা শুরু করে। বর্তমানে দৈনিক হিসেবে গ্রামীণ দর্পণ এর ২৯তম বর্ষ শুরু হলো। সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে এক সময় পত্রিকাটি অনলাইন ভার্সন চালু করে। পাঠক চাহিদার কথা ভেবে তার পরে ফেসবুক একাউন্ট ও ফেসবুক পেইজ এর মাধ্যমে গ্রামীণ দর্পণ নিয়মিত সংবাদ প্রচার শুরু করে। পত্রিকাটির পাঠক ও জনপ্রিয়তা দিনদিন বেড়েই চলেছে। পত্রিকাটির এই দীর্ঘ পথচলায় অনেক চড়াই উৎড়াই পেড়িয়েছে। সকল বাধা বিপত্তিকে সততা ও নিষ্ঠার সাথে মোকাবেলা করে নরসিংদীবাসীর মাঝে স্থান করে নিয়েছে গ্রামীণ দর্পণ। প্রিয় পাঠক দৈনিক গ্রামীণ দর্পণ এর এই সফলতায় আমরা আশাবাদী। প্রিয় পাঠক ও শুভানুধ্যায়ি অতীতের মতো ভবিষ্যতেও আমরা আপনাদের সহযোগিতা পাবো এই আশাবাদ ব্যক্ত করছি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category